লাইপজিগের কাছে হেরে বিদায় সিমিওনের অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের

স্পোর্টস ডেস্কঃ অঘটন যেন পিছু ছাড়ছেই না চ্যাম্পিয়নস লিগকে। এবার সেই অঘটনের শিকার অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। তুলমামূলক খর্বশক্তির দল লাইপজিগের কাছে ২-১ গোলে হেরে কোয়ার্টার ফাইনাল থেকেই বিদায়ের ঘন্টা বেজে গেছে সিমিওনে শিষ্যদের। আর ইউরোপের ক্লাব ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বে নিজেদের মাত্র দ্বিতীয় আসরেই শেষ চারে নাম লেখাল লাইপজিগ।

লিসবনে ম্যাচের শুরু থেকেই লাইপজিগ নিজেদের খেলা দিয়ে দৃষ্টি কেড়ে নেয় সবার। নিখুঁত পাস আর গতিতে জার্মানির ক্লাবটি নিজেদের শক্তিমত্তার পরিচয় দেয়। অপরদিকে করোনায় আক্রান্ত হওয়া অ্যাঞ্জেল কোরেয়া ও সিমে ভারসালিকোকে ছাড়া খেলতে নেমে শুরু থেকেই ধুঁকতে থাকে অ্যাথলেটিকো। তবে ম্যাচের প্রথমার্ধ কাটে গোলশূন্যতে।

দ্বিতীয়ার্ধে ৫০তম মিনিটে লাইপজিগকে ম্যাচে এগিয়ে নেন ডেনি ওলমো। সমতায় ফিরতে মরিয়া অ্যাথলেটিকো জো ফেলিক্সের ফাউলের শিকারে ৭১তম মিনিটে পেয়ে যায় পেনাল্টি। সেখান থেকে স্কোর লাইনে সমতা আনেন ফেলিক্স নিজেই। ম্যাচ যখন সমান সমান লড়াইয়ে ড্র’য়ের পথে এগোচ্ছিল, ম্যাচ শেষ হওয়ার মিনিট দুয়েক আগে তখনই জোড়ালো শটে অ্যাডামস অ্যাথলেটিকোর জালে জড়ান বল।

আর এতেই ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ১১ বছর আগে জার্মান ফুটবলে নাম লেখানো ক্লাব লাইপজিগ। সেমিফাইনালে লাইপজিগের প্রতিপক্ষ পিএসজি। যারা কিনা ইতালিয়ান বিস্ময় আতালান্তার বিপক্ষে ধুঁকতে ধুঁকতে সেমিফাইনালে এসেছে। শেষ চারের লাইপজিগ ও পিএসজির মধ্যকার জমজমাট লড়াই আশা করতেই পারেন ফুটবল প্রেমীরা।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা