লিভারপুল খেলোয়াড়কে ‘কনুই মারা’ রেফারিকে প্রত্যাহার

0
105

স্পোর্টস ডেস্কঃ প্রিমিয়ার লিগ জমিয়ে দিয়েছে লিভারপুল। রোববার রাতের ম্যাচে আর্সেনালের সঙ্গে ২-২ গোলে ড্র করেছে অলরেডরা। ম্যাচের ৮ মিনিটে গ্যাব্রিয়েল মার্টিনেল্লি দুর্দান্ত এক গোল করেন। এরপর ২৮ মিনিটে গোল করেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। ব্রাজিলিয়ান স্ট্রাইকারকে দিয়ে গোল করান আরেক ব্রাজিলিয়ান মার্টিনেল্লি। প্রথমার্ধের শেষ দিকে এক গোল শোধ দিয়ে ম্যাচে ফেরার আভাস দিয়ে রাখে লিভারপুল। ৪২ মিনিটে গোল করেন মোহাম্মদ সালাহ। এরপর ৮৭ মিনিটে গোল করে গানারদের স্তব্ধ করে দেন রর্বাতো ফিরমিনো।

লিভারপুল দারুণভাবে ফিরে এসে আর্সেনালকে রুখে দিয়েছে। এই কারণ ছাড়াও ম্যাচ আরেক কারণে আলোচনায়। চরম নাটকীয়তায় ভরা সেই ম্যাচে নতুন এক বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন ম্যাচ সহকারী কনস্ট্যান্টাইন হ্যাজিডাকিস। অ্যানফিল্ডে রেফারির প্রথমার্ধের বাঁশি বাজানোর পরেই বল নিয়ে রেফারি পল টিয়ারনির দিকে যাচ্ছিলেন সহকারী রেফারি কনস্ট্যান্টাইন হ্যাজিডাকিস।

এই সময় রেফারির সামনে ছুটে যান অলরেড ডিফেন্ডার অ্যান্ডি রবার্টসন। হঠাৎ সহকারী রেফারি কনস্ট্যান্টাইনের হাত ধরে ফেলেন রবার্টসন। ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ায় রবার্টসনের থুতনিতে কনুই দিয়ে আঘাত করেন হাত সরিয়ে ফেলেন কনস্ট্যান্টাইন। রবার্টসনকে আঘাতের পর ক্ষিপ্ত হয়ে পড়েন লিভারপুলের ফুটবলাররা। ম্যাচ অফিসিয়ালদের ঘিরে ধরে প্রতিবাদ জানাতে থাকেন তারা। পরে রবার্টসনকে মাঠ থেকে নিয়ে যান সালাহ ও কোডি গ্যাকপো।

বিতর্কিত কাণ্ডের জন্ম দেওয়া রেফারি হ্যাজিডাকিসকে তদন্তের মুখোমুখি হতে হচ্ছে। ইংলিশ গণমাধ্যম  জানিয়েছে, তাঁকে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত এফএর অধীনে সব ম্যাচ থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। প্রিমিয়ার লিগের রেফারি কমিটি তাদের এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘প্রিমিয়ার লিগের রেফারি কমিটি হ্যাজিডাকিসকে এফএর তদন্তের সময় সব ম্যাচ থেকে প্রত্যাহার করে নিচ্ছে। আর্সেনাল–লিভারপুল ম্যাচে অ্যান্ডি রবার্টসনের সঙ্গে সংঘটিত একটি ঘটনায় তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত হচ্ছে।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/১১০

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here