শুরু করলেন মেসি, ‘রেকর্ড’ গড়ে শেষ করলেন এমবাপে

0
386

স্পোর্টস ডেস্ক:: লিগ ওয়ানডে ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত গোলই হলো। দেড় হালি গোলের মোঞ্চকর ম্যাচে গোলের শুরুটা করলেন লিওনের মেসি। পিএসজিতে জার্সিতে নিজেকে সবার ওপরে নেওয়ার ‘রেকর্ড’ করে ম্যাচটা শেষ করলেন কিলিয়ান এমবাপে। ফরাসি জায়ান্টদের জার্সিতে সবচেয়ে বেশি গোলের মালিক এখন ফরাসি বিশ্বকাপজয়ী এই তারকা।

নঁতের বিপক্ষে ম্যাচের ১২তম মিনিটেই গোল পায় পিএসজি। শুরুর গোলটা আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপয়ী অধিনায়ক লিওনেল মেসির। ম্যাচের অন্তিম লগ্নে, শেষ গোলটা করলেন কিলিয়ান এমবাপে। যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে গোলটি করে পিএসজির জার্সিতে সর্বাধিক গোলের ‘রেকর্ড’ নিজের করেন নেন এই তারকা।

ছয় গোলের ম্যাচটিতে চার গোলই এসেছে প্রথমার্ধে। শুরুতে মেসির গোলে এগিয়ে যাওয়া পিএসজি ব্যবধান বড় করে নঁতের আত্মঘাতী গোলে। দুই গোল হজমের পর নঁতে দুই গোল শোধ দিয়ে ঘুরেও দাঁড়ায় প্রথমার্ধে। দ্বিতীয়ার্ধে আরো দুই গোল করে পিএসজি নিশ্চিত করে জয়।

ম্যাচের ১২তম মিনিটেই মেসির গোলে লিড নেয় ফরাসি চ্যাম্পিয়নরা। এর মিনিট পাঁচেক পরেই নিজেদের ভুলে আবারো গোল হজম করে নঁতে। জাউয়েন হাদজাম বল জড়ান নিজেদেরই জালে। ১৭তম মিনিটে পিএসজি তাই এগিয়ে যায় ২-০ গোলে।

পিছিয়ে পড়ে নঁতে ম্যাচে ফিরতেও খুব একটা সময় নেয়নি। ম্যাচের ৩১তম মিনিটেই ব্যবধান কমায় দলটি। লুডোভিক ব্লাস দারুণ এক গোল করে ম্যাচের স্কোর লাইন করেন ২-১। ব্যবধান কমানোর মিনিট সাতেক পরেই নঁতকে সমতায় ফেরান
ইগনাশিয়াস গানাগো। ৩৮তম মিনিটেই তাই ম্যাচের স্কোর হয়ে যায় ২-২। সমতায় ম্যাচ রেখেই বিরতিতে যায় দুই দল।

বিরতির পর দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরু হলে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে পিএসজি। আক্রমণও বাড়িয়ে দেয় দলটি। ফলও পায় দ্রুত। ম্যাচের ৬০তম মিনিটেই দানিলো পেরেইরার গোলে এগিয়ে যায় মেসির দল। পিছিয়ে পড়া নঁতে ম্যাচে ফেরার চেষ্টা করেও পারেনি। ম্যাচের অন্তিম সময়ে তাদের কফিনে শেষ পেরেক ঠুঁকে দেন কিলিয়ান এমবাপে। যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে পিএসজির ৪-২ গোলের জয় নিশ্চিত করেন তিনি।

২৬ ম্যাচ খেলা পিএসজি জিতেছে ২০ ম্যাচ। ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষস্থান আরো মজবুত করলো দলটি। সমান ম্যাচে মাত্র ৬ ম্যাচ জয়ের দেখা পেয়েছে নঁতে।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here