সিদ্ধান্ত নিচ্ছে বিসিবি, পদ হারাচ্ছেন নির্বাচক নান্নু-সুমন

    স্পোর্টস ডেস্ক:: নিউজিল্যান্ড সিরিজ শেষ, তারও আগে গত ডিসেম্বরে শেষ হয়েছে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু ও আরেক নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমনের মেয়াদ। তবে গত বছর যোগ দেওয়া নির্বাচক আব্দুর রাজ্জাকের মেয়াদ এখনো রয়ে গেছে।

    বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন মাস দু’এক আগেই জানিয়ে ছিলেন, জানুয়ারিতে নির্বাচক প্যানেল নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করা হবে। মেয়াদ শেষ হয়ে গেলেও এতোদিন দায়িত্ব পালন করে গেছেন নান্নু ও বাশার। তবে এবার ক্রিকেট বোর্ড নির্বাচক প্যানেল নিয়ে ভাবছে। পদ হারাতে যাচ্ছেন নান্নু-সুমন।

    দল নির্বাচন ও সাম্প্রতিক দলের পারফর্ম নিয়ে বেশ আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। বিশেষ করে টি-২০ বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর থেকেই আলোচনার কেন্দ্রে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন। এমন অবস্থায় বিসিবিও আর প্রধান নির্বাচক পদে নান্নুকে রাখতে চাইছে না। বোর্ডের এক পক্ষ চাচ্ছে নির্বাচক প্যানেলে পরিবর্তন আনার। দীর্ঘ প্রায় এক দশক থেকে নির্বাচকের দায়িত্ব পালন করছেন নান্নু। নিউজিল্যান্ড সিরিজ শেষে আপাতত মাস দেড়েক বিরতি আছে জাতীয় দলের সূচিতে।

    বিপিএলের পরই আছে আফগানিস্তান সিরিজ। বিসিবি তাই এই সময়টাতে নির্বাচক প্যানেলের সন্ধান করবে। তবে মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর মেয়াদও বাড়তে পারে এমন গুঞ্জন আছে ক্রিকেট বোর্ডে। বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্স বিভাগের চেয়ারম্যান, বোর্ড পরিচালক জালাল ইউনুস জানিয়েছেন, নির্বাচক প্যানেল নিয়ে বোর্ডে কথা বার্তা হচ্ছে।

    ক্রিকেট অপারেশন্সের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘নির্বাচক কমিটি নিয়ে না ভেবে উপায় নেই। কারণ মিনহাজুল আবেদীন নান্নু ও হাবিবুল বাশার সুমনের সঙ্গে বিসিবির চুক্তি শেষ হয়েছে। কাজেই আমাদের একটা কিছু করতে হবে।’

    নির্বাচক পদে পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিয়ে বিসিবির এই পরিচালক একটি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমরা কাউকে চেঞ্জ করবো কিনা সেটা বলা সম্ভব হবে না। তবে সিলেকশন কমিটি নিয়ে আমাদের কনসার্ন আছে, এটা বলা যেতেই পারে। আমরা খোঁজার মধ্যে যে নেই, তাও বলছি না। দেখা যাক কি করা হয়?’

    এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০