সুপার লিগ থেকে সরে দাঁড়াল ৬ ক্লাব

স্পোর্টস ডেস্কঃ ইউরোপিয়ান সুপার লিগের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়ার ৪৮ ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে প্রস্তাবিত এই প্ল্যাটফর্ম থেকে ম্যানচেস্টার সিটির সরে দাঁড়িয়েছে।

গত রোববার রাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রতিদ্বন্দ্বী ইউরোপিয়ান সুপার লিগের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয় ম্যানচেস্টার সিটি ও চেলসিসহ এতে যোগ দেওয়া ১২টি ক্লাব। ঘোষণার পরপরই প্রবল সমালোচনার মুখে পড়ে ‘বিদ্রোহী’ প্রতিযোগিতাটি।

মঙ্গলবার ১২ ক্লাবের মধ্যে ৬ ইংলিশ ক্লাব সরে এসেছে বিতর্কিত এই টুর্নামেন্ট থেকে। সবার আগে সুপার লিগ থেকে সরে দাঁড়ানোর আগ্রহ প্রকাশ করে চেলসি। তবে তাদের আগেই এর আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয় ম্যানচেস্টার সিটি। পরে একে একে সরে দাঁড়ায় টটেনহ্যাম, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, লিভারপুল এবং আর্সেনাল। ফলে এখন সুপার লিগে বাকি রইল মাত্র ৬ ক্লাব।

ম্যান সিটি প্রথমে সরে আসায় উয়েফার সভাপতি অ্যালেকজান্ডার সেফেরিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলেন, ইউরোপীয় ফুটবল পরিবারে সিটির ফিরে আসায় আমি অত্যন্ত আনন্দিত। তারা বহু কণ্ঠ শোনার মতো দুর্দান্ত বুদ্ধিমত্তা দেখিয়েছে, বিশেষত তাদের ভক্তদের- যা বর্তমান অবস্থায পুরো ইউরোপীয় ফুটবলের জন্য খুবই অত্যাবশ্যকীয়।’

তিনি বলেন, ‘উয়েফা কংগ্রেসে আমি বলেছিলাম, ভুল স্বীকার করতে সাহস লাগে, তবে আমি কখনও তাদের সিদ্ধান্ত নেওয়ার দক্ষতা ও সাধারণ জ্ঞানের ক্ষেত্রে সন্দেহ করিনি। খেলার ক্ষেত্রে সিটি সত্যিই একটা সম্পদ। ইউরোপের খেলার সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য তাদের সঙ্গে কাজ করতে পেরে আমি আনন্দিত।’

এদিকে সুপার লিগে খেলার সিদ্ধান্ত নেয়ায় ক্ষমা চেয়েছে আর্সেনাল। ক্লাবটি জানিয়েছে, এমন সিদ্ধান্ত নেয়া তাদের ভুল হয়েছে। ভক্তদের চাওয়া ও ফুটবলের বৃহত্তর স্বার্থে তারা সুপার লিগ থেকে নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/১১০