সুযোগ পাচ্ছেন মুশফিক, বাদ যাচ্ছেন সৌম্য-লিটন

স্পোর্টস ডেস্ক:: বাংলাদেশ পুরো দল এখনো দেশে ফিরেনি। ব্যর্থ বিশ্বকাপ মিশন শেষ করে ইতিমধ্যে দলের বেশির ভাগ ক্রিকেটের ঢাকায় ফিরেছেন। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে পাকিস্তান সিরিজের আলোচনা। বিশ্বকাপ মিশন শেষ করেই তিন ম্যাচের টি-২০ ও দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে ঢাকায় আসবে পাকিস্তান দল।

পাকিস্তান সিরিজের তিনটি টি-২০ ম্যাচ মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে হবে। প্রথম টেস্টটি হবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। দ্বিতীয় টেস্টটি হবে মিরপুরে। ১৯ নভেম্বর সিরিজের প্রথম টি-২০ ম্যাচটি অনুষ্টিত হবে। দ্বিতীয় ম্যাচটি পরদিন ২০ নভেম্বর ও শেষ টি-২০ ম্যাচটি অনুষ্টিত হবে ২২ নভেম্বর। এরপর ২৬ নভেম্বর হতে ৩০ নভেম্বর চট্টগ্রামে হবে প্রথম টেস্ট, ঢাকায় ৪ ডিসেম্বর হতে ৮ ডিসেম্বর হবে সিরিজের শেষ টেস্ট ম্যাচটি।

টি-২০ বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর বাংলাদেশ টি-২০ দলে পরিবর্তন আসছে সেটা অনেকটা নিশ্চিত। ব্যাট হাতে সিনিয়র ক্রিকেটাররা চরম ভাবে ব্যর্থ হয়েছেন। জুনিয়র ক্রিকেটাররাও নিজেদের সামর্থ্য সে ভাবে প্রমাণ করতে পারেননি। তবে বিসিবি যে এবার তরুণদের প্রতি নজর দেবে, সিনিয়র, ফর্মহীন ক্রিকেটাররা টি-২০ একাদশ থেকে বাদ পড়ছেন, সেটা অনুমিতই।

বিশ্বকাপের পুরোটা সময় বাংলাদেশ দল ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে। সহযোগ‍ী সদস্য দেশগুলোর কাছে পর্যন্ত হেরেছে। কোনোমতে সুপার টুয়েলভে খেলতে পারলেও জয় পেয়েছে মাত্র একটি ম্যাচে। এমন হতশ্রী পারফর্মের পর সমালোচনা হচ্ছে চারি দিকে। ক্রিকেটাঙ্গণে গুঞ্জন উঠেছে- এবার পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-২০ দল থেকে বাদ পড়তে যাচ্ছেন চরম ভাবে ব্যর্থ হওয়া দুই ব্যাটার লিটন দাস ও সৌম্য সরকার। সিনিয়র ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিমকে দেওয়া হতে পারে আরেকটি সুযোগ।

তবে নেতৃত্ব মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের কাঁধেই থাকছে। তবে পাকিস্তান সিরিজে সাকিব আল হাসান ফিরছেন কিনা তা এখনো নিশ্চিত নয়। তবে তামিম ইকবাল যে টি-২০ সিরিজে ফিরছেন না, সেটা আগেই জানিয়েছেন। বাংলাদেশের এই ড্যাশিং ওপেনার পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ দিয়েই ফিরছেন ক্রিকেটে। জিম্বাবুয়ে সিরিজ থেকে চোটের জন্য দলের বাইরে আছেন এই ওপেনার।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০