১৫ দিনের নোটিশে শুরু হবে প্রিমিয়ার লিগ, ভেন্যু বিকেএসপি-কক্সবাজার!

স্পোর্টস ডেস্ক:: ঘরোয়া ক্রিকেটের বড় আসর ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ (ডিপিএল)। চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া মহামারি ভাইরাস করোনার কারণে গত তিন মাস থেকে লিগ স্থগিত। তাতে করে অনেক ক্রিকেটার আয়-রোজগারহীন হয়ে পড়ছেন। ঘরোয়া খেলাধুলা স্থগিত থাকায় একদম অলস খাকতে হচ্ছে ক্রিকেটারদেরকে।

ক্রিকেটারদের সংগঠণ কোয়াব করণীয় নির্ধারণে বৈঠক করছেন। এরই মধ্যে ক্রিকেটারদের সঙ্গে বৈঠ করেছেন লিগের নিয়ন্ত্রক সংস্থা সিসিডিএমের চেয়ারম্যান কাজী ইনাম আহমেদ। তিনি কোয়াবের কর্মকর্তা, জাতীয় দল ও প্রথম শ্রেণীর বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারের সঙ্গে বৈঠক করে জানিয়েছেন, করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলেই লিগ শুরু করা হবে।

সিসিডিএম এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ক্লাবগুলোকে খেলোয়াড়দের সঙ্গে ভার্চুয়াল যোগাযোগ রাখতে বলা হয়েছে। পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলে ১৫ দিনের নোটিশ দিয়েই লিগ শুরু করা হবে। লিগের জন্য বিকল্প ভেন্যু হিসেবে বিকেএসপি ও কক্সবাজারকে প্রস্তুুতির কথা জানিয়েছে সিসিডিএম।

বিবৃতিতে ক্লাব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটির চেয়ারম্যান ইনাম বলেন, ‘আমি কোয়াব (খেলোয়াড়দের সংগঠন) এবং জাতীয় দল ও প্রথমশ্রেণির কয়েকজন ক্রিকেটারের সঙ্গে বসেছিলাম। সেখানে কিভাবে ডিপিএল ফের শুরু করা যায় তা নিয়ে আলোচনা হয়। এই মুহূর্তে আমরা যদিও শুরুর সম্ভাব্য তারিখ নিশ্চিত করছি না, তবে ক্লাবগুলোকে বলেছি খেলোয়াড়দের সঙ্গে ভার্চুয়ালি কথা বলে তাদের ফিটনেস যেন ঠিক রাখে। ক্লাবগুলোর প্রস্তুতি রাখা উচিৎ, কেননা পরিস্থিতি ভালো হলে ১৫ দিনের নোটিসে আমরা খেলা শুরু করবো।

কক্সাবাজার ও বিকেএসপিকে বিকল্প ভেন্যু হিসেবে রাখা হচ্ছে জানিয়ে কাজী ইনাম বলেন, ‘আমি কক্সবাজার ও বিকেএসপিকে বিকল্প ভেন্যু হিসেবে পরিকল্পনা করেছি। তবে ক্লাব ম্যানেজমেন্ট যেন খেলোয়াড়দের কঠোরভাবে করোনার নিয়মকানুনের ব্যাপারে জোর দেয় সেকথা বলা হয়েছে। এছাড়া জানতে পেরেছি ব্রাদার্স ইউনিয়ন ও পারটেক্সের ক্রিকেটাররা এই মৌসুমে কোনো পেমেন্ট পায়নি। সিসিডিএম ইতোমধ্যে এই ক্লাবগুলোকে তাদের ক্রিকেটারদের লিগ শুরুর আগে ৫০ শতাংশ পাওয়া দিতে বলেছে। ’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০