১৬ কোটি রুপির মরিসের ব্যাটে জিতল রাজস্থান

স্পোর্টস ডেস্কঃ আইপিএল ২০২১’র সব থেকে দামী ক্রিকেটার ক্রিস মরিস জেতালেন রাজস্থান রয়্যালসকে। দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে খাদের কিনার থেকে দলটে টেনে ম্যাচ জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন দক্ষিণ আফ্রিকান এই ক্রিকেটার। এর আগে নিলামে তাকে ১৬ কোটি ২৫ লাখ রুপিতে কিনেছিল রাজস্থান। চলতি আসরের দ্বিতীয় ম্যাচে এসে নিজের নাম ও দামের প্রতি সুবিচার করলেন এই বোলিং অলরাউন্ডার।

ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবারের ম্যাচে আগে ব্যাট করে ১৪৭ রান করে দিল্লি। জবাব দিতে নেমে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে রাজস্থান। প্রথম সারির ব্যাটসম্যানরা ফিরে গেলে শেষ দিকে ঝড় তুলে ম্যাচ জেতান মরিস। জয়ের জন্য শেষ দুই ওভারে রাজস্থান রয়্যালসের প্রয়োজন ছিল ২৭ রান। ১৯তম ওভারে কাগিসো রাবাদাকে ২ ছক্কার মারার সঙ্গে ওই ওভারে ১৫ রান নিয়েছিলেন মরিস। শেষ ওভারে রাজস্থানের যখন জয়ের জন্য ১২ রান দরকার তখন প্রথম বলে দুই রান নেয়ার পর দ্বিতীয় বলে টম কারানকে ছক্কা মারেন তিনি। পরের বলে ডট দিলেও চতুর্থ বলে ব্যাকওয়ার্ড স্কয়ার লেগ দিয়ে ছক্কা মেরে রাজস্থানের জয় নিশ্চিত করেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। ৩ উইকেট হাতে রেখে ম্যাচটি জিতে সঞ্জু স্যামসনের দল।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বড় ধাক্কা খায় রাজস্থান। দলীয় ১৩ রানে দুই ওপেনার মানান ভোহরা ও জস বাটলার আউট হয়ে ফিরে যান। দুজনকেই ফেরান ইংল্যান্ডের পেস অলরাউন্ডার ক্রিস ওকস। এরপর অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসনকে ৪ রানে আউট করেন এই আসরে প্রথমবার মাঠে নামা কাগিসো রাবাদা। এরপর আভেশ খান ফেরান শিবম দুবে এবং রিয়ান পরাগকে।

রাহুল টিওয়াটিয়াকে সঙ্গে নিয়ে রাজস্থানের হয়ে একা লড়াই চালিয়ে যান ডেভিড মিলার। টিওয়াটিয়া ১৭ বলে ১৯ রান করে রাবাদার শিকার হন। আর প্রোটিয়া তারকা ডেভিড মিলার ৪৩ বলে ৬২ রান করেন। তবে মিলার আউট হয়ে যাওয়ার পরেই রাজস্থানের জয়ের স্বপ্ন ক্রমশ ফিকে হয়ে যায়। কিন্তু শেষ দিকে ত্রাতা হয়ে ওঠেন মরিস। ৪ টি বিশাল ছক্কার মাধ্যমে ১৮ বলে ৩৬* রানের ম্যাচ উইনিং ইনিংস খেলেন তিনি।

দিল্লির হয়ে ৩ উইকেট নেন আভেশ খান। ২টি করে উইকেট নেন রাবাদা এবং ওকস।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৪৭ রান জড়ো করে দিল্লী। দলের পক্ষে অর্ধশতক হাঁকান অধিনায়ক ঋষভ পান্ত। ৯টি চারের সহায়তায় ৩২ বলে ৫১ রান করে তিনি সাজঘরে ফিরলে খেই হারায় দল। অন্য কেউই তেমন প্রতিরোধ গড়তে পারেননি।

দলের পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২১ রান আসে টম কারানের ব্যাট থেকে। ৪ ওভার বল করে ২৯ রান খরচ করা মোস্তাফিজ ২ উইইকেট  নেন। রাজস্থানের আরেক বাঁহাতি পেসার জয়দেব উনাদকাট ১৫ রানের খরচায় শিকার করেন ৩ উইকেট।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/১১০