২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হলো মাহমুদউল্লাহকে

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ডিপিএলে এবার জরিমানা গুনেছেন গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে নাখোশ হয়ে অসৌজন্যমূলক আচরণের জন্য বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ককে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মিরপুরের হোম অব ক্রিকেট শের-ই বাংলায় গতকাল বুধবার বিকেলে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের ব্যাটসম্যান অলক কাপালির বিপক্ষে একটি কট বিহাইন্ডের জোরালো আবেদন করেছিলেন গাজী গ্রুপের বাঁহাতি স্পিনার নাসুম আহমেদ। প্রাইম ব্যাংকের ইনিংসের ১৬তম ওভারের শেষ বলের ঘটনা এটি। আম্পায়ার নটআউটের সিদ্ধান্ত দিলে ঘটে অবাক করা ঘটনা।

উইকেটরক্ষক আকবর আলী আর গাজী গ্রুপের প্রায় সব ফিল্ডার আত্মবিশ্বাসের সাথে একসঙ্গে আবেদন করে উঠেন। দীর্ঘক্ষণ আবেদনের পরও আম্পায়ার লিটু নিজের সিদ্ধান্তে অটল থাকেন। মিড অন থেকে মাঠের মাঝে ছুটে এসে সতীর্থদের সাথে আবেদন করেন মাহমুদউল্লাহও। কিন্তু আম্পায়ারের সাড়া না পেয়ে হতাশ হন তিনি।

মাঠের মধ্যেই ক্ষোভ ঝাড়তে গিয়ে এরপরই শিশুসুলভ আচরণ করেন এই তারকা ক্রিকেটার। হাত-পা ছুঁড়তে থাকেন। আকাশের দিকে চেয়ে মাটিতে দুই হাত আছড়ে দেন। এক পর্যায়ে মাটিতে গড়াগড়িও করতে দেখা যায়। সবাই উঠে দাঁড়ালেও তিনি মাটিতে বসে থাকেন। আম্পায়ার ডাকে পরবর্তীতে উঠেন তিনি। বল হাতে নৈপুণ্য দেখানোর পর ঐ ম্যাচে ব্যাট হাতেও ম্যাচ জয়ে ভূমিকা রাখেন অলক। তার ব্যাটেই মূলত জয় পায় প্রাইম ব্যাংক। তাই উইকেটটি বেশ গুরুত্বপূর্ণই ছিল।

এমন কাণ্ডের জন্য ম্যাচ আম্পায়াররা অফিসিয়ালি রিপোর্ট করেন ম্যাচ রেফারির কাছে। নিজের রিপোর্টে মাহমুদউল্লাহর বিরুদ্ধে আচরণবিধি ২.৮ ধারা ভঙ্গের অভিযোগ আনেন ম্যাচ রেফারি। সেখানে মাহমুদউল্লাহকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। নিজের উপর আসা অভিযোগ স্বীকার করে নিয়েছেন মাহমুদউল্লাহ। যার জন্য আর আলাদা করে শুনানির প্রয়োজন পড়েনি।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/সা