৬১ ধাপ এগিয়ে থাকা মালয়েশিয়াকে গোলবন্যায় ভাসাল সাবিনা-আঁখিরা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ র‍্যাঙ্কিংয়ে দুই দলের ব্যবধানটা স্পষ্ট। ৬১ ধাপ এগিয়ে থাকা মালয়েশিয়া ফেবারিট হিসেবেই নেমেছিল কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে। তবে শক্তিশালী দলকে পাত্তায়ই দিল না বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে ৬-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে সাবিনা-আঁখিরা।

মালয়েশিয়ার জালে গোল বন্যা করেছে বাংলাদেশ। বাংলার বাঘিনীরা সব মিলিয়ে হাফ ডজন গোল দিয়ে জয় তুলে নিয়েছে। নিশ্চিতভাবে স্বাগতিকদের উচ্ছ্বাস বাঁধ ভাঙার মতোই। মুড়ি-মুড়কির মতো গোল করে বিশাল জয়ে বাংলাদেশের সমর্থকদের আনন্দে মাতালেন বাংলার নারীরা।

ম্যাচে একচেটিয়া দাপট দেখিয়েছে বাংলাদেশ দল। মধ্য বিরতির আগেই মালয়েশিয়ার জালে এক হালি গোল দেয় দল। ম্যাচের ৯ মিনিটের মাথায় এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। মারিয়ার কর্ণার থেকে নেওয়া শট থেকে ডান পায়ের শটে বল জালে জড়ান ডিফেন্ডার আঁখি। এরপর ২৬তম মিনিটে স্বপ্নার ক্রস থেকে বল পেয়ে দারুণভাবে মালোয়েশিয়া গোলরক্ষককে কাটিয়ে গোল করেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সাবিনা খাতুন।

৩০তম মিনিটে ফের ব্যবধান বাড়িয়ে নিয়ে যায় বাংলাদেশ। এবার সাবিনার ক্রস থেকে দলের তৃতীয় ও নিজের জোড়া গোল পূরণ করেন আঁখি। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার আগমূহুর্তে সাবিনার দারুণ পাস থেকে খালি জায়গা পেয়ে গোল করেন স্বপ্না। এতেই চার গোলের লিড পায় বাংলাদেশ।

পরবর্তীতে দ্বিতীয়ার্ধে আরও দুই গোল দেয় বাংলাদেশ দল। ৬৭তম মিনিটে মালয়েশিয়ার ফুটবলারদের বোকা বানিয়ে গোল করেন মনিকা চাকমা। আর ৭৪তম মিনিটে শেষ পেরেক ঠুকে দেন কৃষ্ণা রানী সরকার। হেডে জালে জড়ান বল। শেষ পর্যন্ত এই ছয় গোলের বিশাল জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বাংলাদেশ। ম্যাচে গোলের সংখ্যা বাড়তে পারত স্বাগতিকদের। তবে অনেকগুলো সহজ সুযোগ মিস হয় ফিনিশিং ভালো না করায়। এছাড়া গোলবারও বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল। তবে দারুণ ফুটবল উপহার দিয়েছে গোলাম রব্বানি ছোটনের শিষ্যরা।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/সা