পরিসংখ্যানে অ্যারন ফিঞ্চের ওয়ানডে ক্যারিয়ার

0
33

স্পোর্টস ডেস্কঃ ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন অ্যারন ফিঞ্চ। সাম্প্রতিক ফর্ম ভালো না হওয়ায় ৫০ ওভারের ফরম্যাট থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

চলতি বছর ওয়ানডেতে নেই কোনো সেঞ্চুরি। মাত্র ১ ফিফটিতে ১৩ ম্যাচে করেছেন ১৬৯ রান। শেষ ১২ ম্যাচ খেলেই ৫টিতে ফিরেছেন রানের খাতা খোলার আগে। আউট হওয়ার ধরনগুলোও ছিল দৃষ্টিকটু। বয়স ৩৬ ছুঁইছুঁই। তাই সমালোচনা হচ্ছিল অ্যারন ফিঞ্চ খেলছেন অধিনায়কত্বের কোটায়।

তবে সেই সমালোচনা এবার তিনি থামিয়ে দিলেন এক দিবসীয় ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়ে। নতুন অধিনায়ককে পর্যাপ্ত সুযোগ দিতেই এমন সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন ফিঞ্চ। বাজে ফর্মের বিদায় বললেও, বেশ দারুণ পরিসংখ্যান ফিঞ্চের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে।

২০১১ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঐতিহাসিক মেলবোর্নে ওয়ানডে ক্রিকেটে অভিষেকের পর থেকে অস্ট্রেলিয়ার জার্সিতে সব মিলিয়ে ১৪৫টি ম্যাচ খেলেছেন ফিঞ্চ। ১৭ সেঞ্চুরি আর ৩০ ফিফটিতে ৩৯.১৩ গড় আর ৮৭.৮৩ স্ট্রাইকরেটে করেছেন ৫৪০১ রান। ক্যারিয়ারে ১৫৩ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছেন পাকিস্তানের বিপক্ষে। আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে নিজের সময়ে বিশ্বের অন্যতম সেরা একজন ওপেনারদের মধ্যে ছিলেন তিনি।

বড় দলগুলোর বিপক্ষে ফিঞ্চের গড়টা দুর্দান্ত। এর মধ্যে সেরা তিন গড়ে প্রতিপক্ষ যথাক্রমে পাকিস্তান, ভারত ও ইংল্যান্ড। এর মধ্যে ২ সেঞ্চুরিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে গড় সর্বোচ্চ ৪৯.১৬। ৪ সেঞ্চুরিতে ৪৮.৬৬ গড় ভারতের বিপক্ষে। আর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৭ সেঞ্চুরিতে ৪৮.৩৫ গড়।

এদিকে অস্ট্রেলিয়ার জার্সিতে ওয়ানডেতে রিকি পন্টিং (২৯), ডেভিড ওয়ার্নার (১৮), মার্ক ওয়াহর (১৮) পর চতুর্থ সর্বোচ্চ ১৭টি সেঞ্চুরি ফিঞ্চের। ২০১৯ সালটা সবচেয়ে দুর্দান্ত কেটেছে ফিঞ্চের।৪ সেঞ্চুরিতে ১১৪১ রান করেছিলেন সেই বছর। ঘরের মাঠে ২০১৫ ওয়ানডে বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য ছিলেন ফিঞ্চ।

নেতৃত্বেও নজর কেড়েছেন ডানহাতি এই ক্রিকেটার। দলকে এই ফরম্যাটে ৫৪টি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন। এর মধ্যে জিতেছেন ৩০টিতেই। তার জয়ের আনুপাতিক গড় ৫৫.৫৫। অস্ট্রেলিয়ার এক দিনের ক্রিকেটে অধিনায়ক হিসেবে ওয়ানডেতে পঞ্চম সেরা সাফল্যে ফিঞ্চের।

তবে ওয়ানডেতে সব পরিসংখ্যানই এবার থেমে গেল। রোববার নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় বলবেন তিনি। অথচ আগামী ২০২৩ বিশ্বকাপে দলকে নেতৃত্ব দেওয়া অনেকটাই নিশ্চিত ছিল। কিন্তু বাজে ফর্ম টেনে নিতে চাননি। নতুন অধিনায়ককে গুছিয়ে ওঠার পর্যাপ্ত সুযোগ করে দিতে আগেভাগেই সরে দাঁড়িয়েছেন এই ফরম্যাট থেকে।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here