বাবর আজম- ১০, ৯, ১৪, ০, ৩০, ?

0
45

স্পোর্টস ডেস্ক:: বাবর আজম মাঠে নামা মানেই রানের বন্যা হওয়া। বোলারদের ভয় পাওয়ার কথা। অন্তত এশিয়া কাপ শুরুর আগে পাকিস্তান অধিনায়ক ছিলেন ভয়ঙ্কর এক ব্যাটার। সব দল সমীহ করতো, বোলাররা আলাদা পরিকল্পনা করেই মাঠে নামতেন।

এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ে দলেও নিশ্চয়ই অনেক চাওয়া ছিলো তার কাছে। বিশ্ব ক্রিকেটকে বর্তমানে শাসন করা এই পাক ব্যাটার বড্ড অচেনা এশিয়া কাপে। দল ভালো খেলে ফাইনাল পর্যন্ত আসলেও অধিনায়ক যে ব্যাট হাতে চরম ব্যর্থ হচ্ছে।

বাবর আজম ইতিমধ্যে পাঁচটি ম্যাচ খেলেছেন এশিয়া কাপে। একটি ম্যাচেও হাসেনি তার ব্যাট। ১০, ৯, ১৪, ০, ৩০ তার এশিয়া কাপ ম্যাচের স্কোর। কাল রোববার ফাইনাল। শিরোপার মঞ্চে কি বাবরের ব্যাট জ্বলে উঠবে? ভক্ত-সমর্থকেরা চিরচেনা বাবরকে দেখবেন দুবাইয়ে ফাইনালের মহারণে?

বাবরের ব্যাট হাসলেই পাকিস্তানের জন্য শিরোপাটা সহজ হয়ে যাবে। পাকিস্তান টিম ম্যানেজম্যান্টতো অবশ্যই, দেশটির সমর্থকদেরও চাওয়া নিশ্চয়ই বাবরের ব্যাট আজ কথা বলুক। ফর্মে ফিরুন তিনি। এশিয়া কাপ টি-২০ শুরুর আগে কি ছন্দেই না ছিলেন তিনি। ম্যাচের পর ম্যাচ রান করে গেছেন।

সামনেই টি-২০ বিশ্বকাপ। পাকিস্তানের চাওয়া বিশ্বকাপের আগে হাসুক অধিনায়কের ব্যাট। আর সেটা যদি কাল ফাইনালের মঞ্চে হয়ে যায়, তাহলে হো পাকিস্তানের ষোলকলাই পূর্ণ হয়ে যাবে। ২৮ আগস্ট চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে এশিয়া কাপ শুরু করে পাকিস্তান। সেই ম্যাচে ১০ রানে আউট হন বাবর।

এশিয়া কাপের সুফার ফোরেই ভারতকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে প্রতিশোধ নিয়েছে পাকিস্তান। তবে অধিনায়কের রানে ফেরা হয়নি। গ্রুপ পর্বে আরেক ম্যাচে হংকংয়ের বিপক্ষে বাবর ৯ রান করেন। সুপার ফোরে পরের ম্যাচে ভারতের ১৪ রানেই থামে তার ইনিংস। আফগানিস্তানকে বিদায় করে দেওয়ার ম্যাচে শুন্য রানেই ফিরেন প্যাভেলিয়নে।

শুক্রবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে রানে ফেরার ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন। এবারের এশিয়া কাপে নিজের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস খেলেন। ২৯ বলে করেন ৩০ রান। কাল রোববার হয়তো পূর্ণতা পাবে বাবরের ব্যাট। রানে ফিরবেন তিনি। এমন চাওয়া দেশটির ক্রিকেট প্রেমীদের।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটক/নিপ্র/ডেস্ক/০০

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here