‘সারা জীবন টেপ টেনিসে অভ্যস্ত’ পাকিস্তানের এমন ব্যাটিং হতাশার- বাট

স্পোর্টস ডেস্ক:: পাকিস্তানের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সুপার ফোরের ম্যাচে ভেঙে পড়ে। টস হেরে ব্যাট করতে নামা পাকিস্তান লঙ্কান বোলারদের তোপের মুখে পড়ে মাত্র ১২১ রানেই গুটিয়ে যায়। বাবর আজমদের এমন ব্যাটিং দেখে চরম হতাশ পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক সালমান বাট।

পাকিস্তানের সাবেক এই অধিনায়ক জানিয়েছেন, নিশ্চয় ফাইনালে ঘুরে দাঁড়াবে তার দল। শিরোপা জেতার জন্য ভিন্ন মানসিকতা নিয়ে ফাইনালে মাঠে নামবে তার দল। ভিন্ন এক পাকিস্তানকে দেখা যাবে ফাইনালে, মনে করেন সালমান বাট।

ফাইনালে পাকিস্তান ঘুরে দাঁড়াবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি নিশ্চিত, ফাইনালে পাকিস্তান ভিন্ন একটি দল হবে। তারা ভিন্ন মানসিকতা নিয়ে এই ম্যাচ খেলতে আসবে। পাশাপাশি এ-ও বলতে হয়ে যে ব্যাটিং নিয়ে বেশ উদ্বেগ আছে। পাকিস্তানকে প্রতিটি ধাপে দারুণ কিছু করে দেখাতে হবে।’

সারা জীবন টেপ টেনিস খেলা অভ্যস্ত হওয়া পাকিস্তানের ব্যাটারদের এমন ব্যাটিংয়ে হতাশ সালমান বাট শ্রীলঙ্কার বোলারদের বোলিং বুঝতে না পারার সমালোচনা করেছেন। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে তিনি বলেন, ‘যেভাবে পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা আউট হয়েছে, তা বেশ হতাশাজনক। সারা জীবন তারা টেপ টেনিসে খেলেছে। তারা কী ভাবে হাসারাঙ্গার আঙুলের বৈচিত্র বুঝতে পারে না? ইফতেখার আহমেদ আগের ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও গুগলি বুঝতে পারেনি। সে বোলাের বৈচিত্র ধরতেই পারেনি।’

পাকিস্তানের জন্য ওই দিনটা খারাপ দিন ছিলো না, ব্যাটসম্যানরা খারাপ খেলেছেন জানিয়ে সালমান বাট বলেন, ‘পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানরা যে ধরনের শট খেলেছে, আমি এটাকে তাদের জন্য খারাপ দিন বলতে পারি না। আমি বলব, তারা যে ধরণের শট খেলেছে, তা বেশ বাজে ছিল। আমরা তখনি এটাকে তাদের খারাপ দিন বলতে পারতাম, যখন তাদের ভাগ্য খারাপ হতো। ব্যাটসম্যানরা আউট হয়েছে বোলারদের বৈচিত্র্য বুঝতে না পারার কারণে।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০