মুশফিকের চার নম্বর পজিশনে লিটনকে খেলাতে চায় টিম ম্যানেজম্যান্ট!

স্পোর্টস ডেস্কঃ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন মুশফিকুর রহিম। আর তাই সবারই ধারণা ছিল আফিফ হোসেন ধ্রুবর ব্যাটিং পজিশন উন্নতি হচ্ছে। মুশফিকের জায়গায় ব্যাটিংয়ে নামবেন আফিফ হোসেন ধ্রুব।

তবে সেই ভাবনায় জল ঢেলে দিচ্ছে টিম ম্যানেজম্যান্ট। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানিয়েছেন, আফিফকে নয় লিটন দাসকে চার নম্বর পজিশনের জন্য ভাবছে দল। আর আফিফকে ভাবা হচ্ছে পাঁচ নম্বর পজিশনের জন্য। আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপকে সামনে রেখে এই ভাবনা চলছে।

টেস্ট ব্যাতীত সাদা বলের দুই ফরম্যাটে ওপেনিং পজিশনে খেলেন লিটন দাস। টি-টোয়েন্টিতে তামিম ইকবালের অবসরের পর লিটন দাসের সঙ্গী হিসেবে কেউই ওপেনিংয়ে থিতু হতে পারেননি। একে তো দলে ওপেনারের, তার ওপর লিটন চার নম্বরে নেমে গেলে ‘মেইক শিফট’ তত্ত্বে ফিরতে হবে দলকে। সবশেষ এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সাব্বির রহমান ও মেহেদী হাসান মিরাজ সেভাবেই নেমেছিলেন।

লিটনকে চারে খেলানোর ব্যখ্যা দিয়েছেন নির্বাচক। টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ দলের টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট শ্রীধরন শ্রীরামও এটিই চান। মূলত পাওয়ার প্লে’র পর রান খরায় ভুগে বাংলাদেশ। সেক্ষেত্রে লিটন ও আফিফের হাতে অনেক শট আছে। গ্যাপ বের করে রান ও পাওয়ার হিটিংয়ে দ্রুত রান তুলতে পারেন তারা।

আর এজন্যই লিটনকে চারে ও আফিফকে পাঁচ নম্বরে খেলানোর ভাবনা টিম ম্যানেজম্যান্টের। যদিও এই ব্যাপারে এখন পর্যন্ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি দল। এর আগে লিটনের সাথে কথা বলবেন তারা। এরপরই নেওয়া হবে সিদ্ধান্ত।

ক্রিকবাজকে এই প্রসঙ্গে মিনহাজুল আবেদীন নান্নু বলেন, ‘আমরা ওকে চারে নামানোর জন্য পরিকল্পনা করছি। তবে এই বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি।’

নান্নু আরও বলেন, ‘আমরা ওপেনিংয়ের জন্য লিটনকে ভাবছি না এখন। তবে সে এই সিদ্ধান্তকে কিভাবে নেয়, সেটিও দেখতে হবে এখানে। আমরা আগামী অনুশীলনে ওর সাথে এই বিষয় নিয়ে কথা বলবো। যদি লিটন রাজি হয় এবং ওপেন না করে, তাহলে তাকে চারে পাঠানো হবে আর আফিফ আসবে পাঁচে। ছয় নম্বরে বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার আছে। অস্ট্রেলিয়ায় (টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে) আমাদের লম্বা ব্যাটিং লাইনআপ প্রয়োজন।’

শ্রীধরনও এমনটি চায় বলে জানিয়েছেন নান্নু। তিনি বলেন, ‘শ্রীরামও এটি চায়, কারণ লিটনকে ব্যাট করতে দেখেছে এবং সে জানিয়েছে চার ও পাঁচ নম্বরে লিটন-আফিফের মতো ব্যাটসম্যান প্রয়োজন তার। কেননা পাওয়ার প্লে’র ছয় ওভার শেষে বাউন্ডারি হাঁকানো কঠিন, খেলোয়াড়রা চারদিকে ছড়িয়ে থাকে। তখন তারা গ্যাপে খেলে রান করতে পারেন এবং পাওয়ার হিটিংও বেশ ভালো আফিফ ও লিটনের।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা