টাকারের একার লড়াইয়ের পরও বড় হার আয়ারল্যান্ডের

0
62

স্পোর্টস ডেস্কঃ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় জয় তুলে নিল অস্ট্রেলিয়া। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৪১ রানের বড় জয় পেয়েছে দলটি। এদিকে আসরে নিজেদের দ্বিতীয় হার দেখলো আইরিশরা। অস্ট্রেলিয়ার করা ১৭৯ রানের বিপরীতে আয়ারল্যান্ড গুঁটিয়ে গেছে ১৩৭ রানে। শুরুর ব্যাটিং বিপর্যয়ের পর লরক্যান টাকার একা হাতে খেলে গেছেন। তবে তার দারুণ ফিফটির ইনিংস কেবল পরাজয়ের ব্যবধানই কমিয়েছে।

ব্রিসবেনের গ্যাবায় ১৮০ রানের বড় লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা উড়ন্তই করেছিল আয়ারল্যান্ড। তবে দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে ১৮ রানের উদ্বোধনী জুটি ভেঙে অধিনায়ক অ্যান্ডি বালবার্নি ফিরলেই ভাঙে সেই জুটি। এরপর একে একে প্যাভিলিয়নে ফিরতে থাকেন পল স্টার্লিং, হ্যারি টেক্টর, ক্যাম্পার, ডকরেলরা। এর মধ্যে ক্যাম্পার গোল্ডেন ডাক আর ডকরেল ডাক মেরে ফিরেন।

৪ ওভারে ২৫ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে বিধ্বস্ত হয়ে পড়ে আইরিশদের ব্যাটিং লাইনআপ। পরবর্তীতে উইকেটের এক পাশ আগলে রেখে লোয়ার মিডল অর্ডারের ব্যাটারদের সাথে নিয়ে ছোট ছোট জুটি গড়ে দলের সম্মান রক্ষার্থে ব্যস্ত হয়ে পড়েন টাকার। একটা সময় তৈরি করেন জয়ের সম্ভাবনাও। তবে সঙ্গ পাননি কারোরই। ইনিংসের ১১ বল বাকি থাকতেই ১৮.১ ওভারে ১৩৭ রানে গুঁটিয়ে যায় আয়ারল্যান্ডের ইনিংস। ৪৮ বলে ৯ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় প্রায় ১৪৮ স্ট্রাইক রেটে ৭১ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে অপরাজিত থেকেই মাঠ ছাড়েন টাকার। দলের পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১০ বলে ২ বাউন্ডারিতে ১৪ রান করেন গ্যারেথ ডেলানি।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে প্যাট কামিন্স, গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মিচেল স্টার্ক ও অ্যাডাম জাম্পা ২টি করে উইকেট শিকার করেন। মার্কাস স্টোয়নিস লাভ করেন ১ উইকেট।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৭৯ রানের পুঁজি পায় অস্ট্রেলিয়া। শুরুটা ভালো হয়নি দলটির। তৃতীয় ওভারের প্রথম বলেই ডেভিড ওয়ার্নার প্যাভিলিয়নে ফেরেন দলীয় ৮ আর ব্যক্তিগত ৩ রানের মাথায়। তবে দ্বিতীয় উইকেটে ৫২ রানের জুটি গড়ে দলকে ভালো অবস্থানে নিয়ে যান তিনি। এই জুটি ভাঙার পর, উইকেটে এসে বেশি সময় টিকতে পারেননি গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। চতুর্থ উইকেটে মার্কাস স্টোয়নিসকে সাথে নিয়ে ৭০ রানের দারুণ জুটি গড়ে দলকে বড় সংগ্রহের পথ দেখান অধিনায়ক ফিঞ্চ।

স্টোয়নিস-টিম ডেভিডরা শেষ দিকে ১৮০’র ঘরের কাছে নিয়ে যান দলকে। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৩ রানের ইনিংস খেলেন ফিঞ্চ। ৪৪ বলে ৫ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় সাজানো ছিল তার ইনিংসটি। ২৫ বলে ৩ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় ৩৫ রান করেন স্টোয়নিস। মিচেল মার্শ ২৮ করেন। ২ বাউন্ডারিতে ১৫ রান করে টিম ডেভিড ও ১ বাউন্ডারিতে ৭ রান করে ম্যাথু ওয়েড অপরাজিত থাকেন।

আয়ারল্যান্ডের হয়ে ব্যারি ম্যাকার্থি ৪ ওভারে ২৯ রান খরচায় ৩ উইকেট শিকার করেন। ২১ রান খরচ করেচ ২ উইকেট লাভ করেন জস লিটল।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here