মরুভূমির বালুর কাঠামো দিয়ে ঘেরা বিশ্বকাপ ফুটবলের যে ভেন্যু

0
71

নিজস্ব প্রতিবেদক:: আর মাত্র ক’টা দিন। এরপরই পর্দা উঠতে যাচ্ছে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ’ খ্যাত বিশ্বকাপ ফুটবলের। কাতারে অনুষ্ঠিত হবে ২০২২ ফুটবল বিশ্বকাপ। ৩২ দলের ফুটবল লড়াই দেখার অপেক্ষায় গোটা বিশ্ব। শুধুমাত্র ফুটবলের লড়াই নয়, এই ক্রীড়া মহাযজজ্ঞের সাথে জড়িয়ে আছে আরও অনেক কিছু। দীর্ঘ প্রচেষ্টায় নিজেদেরকে প্রস্তুত করেছে আয়োজক দেশ কাতার। যেখানে স্টেডিয়াম আছে বড় অংশ জুড়ে। বিশ্বকাপের জন্য সম্পূর্ণ নতুন স্টেডিয়াম গড়ে তুলেছে বিশ্বকাপের আয়োজকরা। সেই স্টেডিয়ামগুলোর বিস্তারিত ধারাবাহিকভাবে তুলা ধরা হবে। আজকের প্রতিবেদনে থাকছে আহম্মদ বিন আলি স্টেডিয়াম বা আল রাইয়াত স্টেডিয়ামের কথা।

কাতারের জনপ্রিয় এক স্টেডিয়াম হলো আল রাইয়ান স্টেডিয়াম। যদিও এর মূল নাম আহম্মদ বিন আলি স্টেডিয়াম। মধ্য দোহা থেকে ২০ কিলোমিটার পশ্চিমে আল রাইয়ান শহরে অবস্থিত এই মাঠ। বহুমুখী এই স্টেডিয়াম কাতারের ঘরোয়া ফুটবলের দুই ক্লাব আল রাইয়ান এবং আল খুরাইতিয়াতের হোম ভেন্যু।

২০০৩ সালে ২১ হাজার ধারণক্ষমতাসম্পন্ন এই স্টেডিয়াম নির্মাণ করা হয়। তবে বিশ্বকাপকে সামনে রেখে এবার নতুন করে কাজ করা হয়েছে। নকশায় পরিবর্তন আনার পাশাপাশি অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধাও বাড়ানো হয়েছে। আসন সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪০ হাজারে। অবশ্য বিশ্বকাপের পর আবারও ২০ হাজারে নিয়ে আসা হবে আসন সংখ্যা। আল রাইয়ানের ঘরের মাঠ হিসেবে আবারও ব্যবহার করতে দেওয়া হবে মাঠ।

২০১৬ সালে শুরু হয় কাজ। যৌথভাবে স্টেডিয়াম সংস্কারের কাজ করে আল-বালাঘ, লার্সেন এবং টার্বো। স্টেডিয়ামটি তৈরী করা হয়েছে পরিবেশ বান্ধব ও স্থায়িত্বের দিকটি বিবেচনায় রেখে। স্টেডিয়ামে ছাপ রয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের সবচেয়ে জনপ্রিয় বিষয় মরুভূমির। স্টেডিয়ামের সামনে বালুর কাঠামো রয়েছে স্টেডিয়ামের চারপাশে। আছে জ্যামিতিক আকারের নানান উদ্ভিদও।

রাতের বেলা আলো ঝলমলে চাকচিক্যতায় সৌন্দর্য বেড়ে যায় দ্বিগুণ। মরুর বুকে এ এক দৃষ্টিনন্দন স্থাপনা বললে ভুল হবে খুব একটা। বিশ্বকাপকে সামনে রেখে নতুন গড়ে উঠা এই স্টেডিয়ামে কাতারের স্থানীয় ঐতিহ্যকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। হাজারো সব লোককথার সাক্ষী হয়ে আছে এই মাঠ। স্টেডিয়ামের পাশেই বিশ্বকাপের জন্য মেট্রো স্টেশন করা হয়েছে নতুনভাবে। অদূরেই আছে কাতারের বৃহৎ শপিং মল ‘মল অব কাতার’।

সংস্কারের পর আমির কাপের ফাইনালের মধ্য দিয়ে ১৮ ডিসেম্বর ২০২০ সালে নতুন করে উদ্বোধন করা হয়েছে এই স্টেডিয়ামের। কাতার বিশ্বকাপের মোট ৭টি ম্যাচ হবে আল রাইয়ান স্টেডিয়ামে। এর মধ্যে গ্রুপ পর্বেরই ৬টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। গ্রুপ পর্বে বেলজিয়াম ও ক্রোয়েশিয়ার ম্যাচ হবে এই মাঠে। বেলজিয়ামের আরও একটি ম্যাচ আছে এখানে। এছাড়া ইংল্যান্ড-ওয়েলসের ম্যাচও অনুষ্ঠিত হবে। আছে এশিয়ার দেশ জাপানেরও ম্যাচ। নক আউট পর্বের একটি মাত্র ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। সেটি শুধুমাত্র রাউন্ড অব সিক্সটিনের।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/সা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here